মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ৯ ডিসেম্বর ২০১৮

উদ্যমী ও আলোকিত রাজনীতিক হিসেবে বিকল্পহীন মসিকের প্রথম প্রশাসক টিটু


প্রকাশন তারিখ : 2018-11-27

৯ বছরে নগরবাসীকে প্রায় তিন শতাধিক উন্নয়ন প্রকল্প উপহার

 

ব্রহ্মপুত্রের পাড়ে, সাহিত্য সংস্কৃতির উত্তরাধিকারিত্ব নিয়ে রাজনীতিতে নন্দিত হয়ে উঠেছেন ময়মনসিংহের মেয়র ইকরামুল হক টিটু। বয়সে তরুণ, পারিবারিকভাবেই বঙ্গবন্ধুর আর্দশ ও আওয়ামী লীগের রাজনীতি তার রক্তে। কিন্তু ময়মনসিংহ পৌর মেয়র হিসাবে তিনি নিজেকে দলের ঊর্ধ্বে রেখে সকল নাগরিক ও মানুষের জন্য দুয়ার খুলে রেখেছেন সারাক্ষণ। তার অমায়িক ব্যবহার, মানুষের সুখ-দুঃখে পাশে থাকা এবং যে কারো সমস্যা সমাধানে আন্তরিকভাবে সাড়া দেয়া সবার মাঝে আপন করে নিয়েছে।  দলীয় নেতৃত্বের প্রতি আনুগত্য রেখে বিনয়ী, ভদ্র ও সাহসী মেয়র ইকরামুল হক টিটু ব্যাপক উন্নয়ন কর্মকাণ্ডে ময়মনসিংহ নগরীকে বদলে দিচ্ছেন। অন্যদিকে মানুষের সঙ্গে একাত্ম হয়ে নিরহংকারী আচরণে জয় করে হাঁটছেন মানুষের হৃদয়।     আধুনিক তিলোত্তমা নগরী হিসেবে ময়মনসিংহকে গড়তে চলছে পরিকল্পিত সৌন্দর্যবর্ধন কাজ। বিউটিফিকেশনের আওতায় সংস্কৃতির নগরীর গুরুত্বপূর্ণ মোড়ে স্থাপন করা হয়েছে ভাস্কর্য শিল্প। নান্দনিক স্থাপত্যশৈলীর মাধ্যমে ময়মনসিংহ পৌরসভা সড়ক দ্বীপগুলোকে সাজাচ্ছে নতুন রূপে।  অনুন্নয়নের অচলায়তন ভাঙা এ রূপকারের নাম ইকরামুল হক টিটু। ময়মনসিংহ পৌরসভার এ মেয়র মোঃ ইকরামুল হক টিটু ব্রক্ষপুত্র নদের উপকন্ঠের এ নগরীকে আধুনিক চিন্তা-চেতনার মেলবন্ধন ঘটিয়ে দৃষ্টিনন্দন বিউটিফিকেশন ও পরিকল্পিত উন্নয়নের মধ্যে দিয়ে ‘সুন্দর শহর’ এর আলোকে নিয়েছেন নতুন নতুন প্রয়াস।   নয়নাভিরাম ও নান্দনিক রূপ পেয়েছে ময়মনসিংহ নগরী। একসময় যে নগরী ছিলো অবহেলিত, বঞ্চিত, অনুন্নত ও বৈষম্যের শিকার এখন সেখানেই নান্দনিকতার নতুন ছোঁয়া। ইতিহাস, ঐতিহ্য ও প্রকৃতির নজরকাড়া থিমে বদলে গেছে শিক্ষা ও সংস্কৃতির নগরী ময়মনসিংহ। বর্জ্য ও ড্রেনেজ ব্যবস্থার উন্নয়ন থেকে শুরু করে নতুন নতুন সড়ক নির্মাণ, হাজার হাজার বেকার পুরুষ ও মহিলাকে প্রশিক্ষণ, অসহায় ও দরিদ্র পরিবারকে আর্থিক সহায়তা-সবকিছুতেই মুন্সীয়ানার পরিচয় দিয়েছেন ইকরামুল হক টিটু। প্রায় ৯ বছর ময়মনসিংহ পৌরসভার মেয়র পদে থেকে সেবার মনোভাব নিয়ে কাজ করেছেন ইতিবাচকভাবে। সাফল্যের সঙ্গে মোকাবিলা করেছেন নানামুখী চ্যালেঞ্জ। ম্যাজিক উন্নয়নের এই রূপকারের ওপর আস্থা থেকেই বঙ্গবন্ধু কন্যা, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাকে দায়িত্ব দিয়েছেন নবগঠিত ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের প্রথম প্রশাসক হিসেবে। এরই মধ্যে দিয়ে ইতিহাসের পাতায় ঠাঁই করে নিয়েছেন তিনি। উন্নয়ন-অগ্রগতির মহাসোপানে ময়মনসিংহকে এগিয়ে নিয়ে জ্বালিয়েছেন আশার আলো। গত ১৮ অক্টোবর বৃহস্পতিবার ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের প্রথম প্রশাসক হিসেবে দায়িত্ব নিয়েছেন উদ্যমী ও আলোকিত এই রাজনীতিক। একেবারে খেটে খাওয়া মানুষ থেকে শুরু করে রাজনৈতিক বিশ্লেষক সবার চুলচেরা বিশ্লেষণে ময়মনসিংহ নগরীর সার্বিক দৃশ্যপট বদলে দিয়ে নিজেকে অনন্য উচ্চতায় নিয়ে গেছেন ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের এই প্রশাসক। স্থানীয়দের ভাষ্যমতে, শুধু একজন নগর পিতা হিসেবে নগরীর উন্নয়নেই নিজেকে সীমাবদ্ধ রাখেননি ময়মনসিংহ মহানগর আওয়ামী লীগের এই সহ-সভাপতি। ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের রাজনীতিতেও সৃষ্টি করেছেন নতুন ধারার। ধর্মীয়, সামাজিক, রাজনৈতিক অনুষ্ঠান থেকে শুরু করে নগরবাসীর কিংবা দলের একজন প্রান্তিক কর্মীর দুর্যোগ-দুর্বিপাক বা সমস্যায় মুহূর্তেই ছুটে গেছেন। সাধারণের সঙ্গে মিশে যাওয়ার অসাধারণ ক্ষমতা দলের ভেতরে-বাইরে তাকে জনপ্রিয় করে তোলার পাশাপাশি দেশের নতুন এই মহানগরীতে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের রাজনীতিকে শক্তিশালী ও চাঙা রেখেছেন। ময়মনসিংহ মহানগর আওয়ামী লীগের এই সহ-সভাপতি একজন জনপ্রতিনিধি বা রাজনৈতিক নেতা হিসেবে সব সূচকেই সাফল্য, অগ্রগতি আর উন্নয়নের পায়রা উড়িয়ে ছুটছেন দুর্বার গতিতে। ময়মনসিংহ চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সহ-সভাপতি শঙ্কর সাহার মতে, ‘সাবেক মেয়র টিটুর অসম সাহস, দক্ষতা, দূরদৃষ্টি ও অসীম ধৈর্য নগরীর উন্নয়নে তার প্রতিটি পদক্ষেপকে নগরীর বাসিন্দারা আন্তরিকভাবে স্বাগত জানিয়েছেন। সবচেয়ে বড় কথা তার কাজে কোনো দুর্নাম হয়নি। উন্নয়নের ক্ষেত্রে তিনি অবহেলিত এলাকাকে প্রাধান্য দিয়েছেন। প্রতিটি এলাকাতেই সুষম উন্নয়ন নিশ্চিত করেছেন। সিটি প্রশাসক হিসেবেও তিনি এই ধারাবাহিকতা বজায় রাখবেন বলে আশা করি।’ জানা যায়, সিটি কর্পোরেশনের প্রশাসক হিসেবে দায়িত্ব নিয়ে আগের যে কোনো সময়ের তুলনায় এখন অনেক বেশি আত্মবিশ্বাসী ইকরামুল হক টিটু। তার নতুন দায়িত্বপ্রাপ্তিতে এখনো আনন্দের ঢেউ বইছে গোটা ময়মনসিংহ নগরীতে। চলছে মিষ্টি মুখের ধুম। মূলত সিটি কর্পোরেশনের প্রশাসক টিটুর অব্যাহত কর্মযজ্ঞে সরকারের শেষ সময়েও জনমত যাচাইয়ে ময়মনসিংহ মহানগরীতে শক্তিশালী ও সুবিধাজনক অবস্থানে রয়েছে আওয়ামী লীগ এমন অভিমত তৃণমূলের কর্মীদের। আরও জানা গেছে, অনুন্নয়নের বৃত্ত থেকে ময়মনসিংহকে বের করে আনতে প্রায় ৯ বছর আগে ময়মনসিংহ পৌরসভার মেয়রের দায়িত্ব গ্রহণ করেন ইকরামুল হক টিটু। পৌর বাসিন্দাদের কল্যাণ আর সেবার ভিশন নিয়ে শুরু করেন কাজ। নিজের প্রতিটি দিনকেই তিনি আগামী নির্বাচনের প্রস্তুতি ধরেই পথ চলেন। সেভাবেই স্থানীয় ভোটারদের সঙ্গে নিবিড় যোগাযোগ রক্ষা করে একটি দৃষ্টান্ত স্থাপন করেন।

 

 

 

 

সূত্রঃ শীর্ষ খবর ডটকম


Share with :

Facebook Facebook